কম সময়ে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে আল-খলীল কোরআন শিক্ষা বোর্ডের কার্যক্রম

0

মুস্তাকিম আল মুনতাজ : গত (১৪ মে,রবিবার) বৃহত্তর মৌলভীবাজারের ঐতিত্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামিয়া লুৎফিয়া আনওয়ারুল উলূম হামিদ নগর বরুনা মাদ্রাসার আল-খলীল কোরআন শিক্ষা বোর্ড এর সম্পাদক ও বরুনা মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা হেলাল আহমদ সিলেটী হুজুর (দাঃবাঃ) এর সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যাই। সাথে ছিল বন্ধুবর মনিরুল ইসলাম জহির ও ফাহিল আল হাসান।

মাওলানা হেলাল আহমদ

বিভিন্ন বিষয় নিয়ে হুজুরের সাথে দীর্ঘ আলোচনা হয়। হুজুরের জ্ঞানগর্ব আলোচনা আমাদেরকে মুগ্ধ করেছে। যতই শুনছিলাম। ততই যেন ভালো লাগছিল। আর সে আলোচনা থেকে নিজেদের জন্য কিছু খোরাক সংগ্রহ করছিলাম। পাশা-পাশি হুজুরের আপ্যায়নে আমরা কৃতজ্ঞ। আসলে উস্তাদ-ছাত্রের মাঝে সম্পর্ক এমনি হওয়া উচিত। সেই কবে পড়েছিলাম। কিন্তু আজও হুজুর আমাদেরকে হৃদয়ে রেখেছেন। শত ব্যস্ততার মধ্যেও যে আমাদের কথা স্মরণ আছে। এজন্য সত্যি আমরা ভাগ্যবান। . যাই হোক, আলোচনার এক পর্যায়ে আল-খলীল এর সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে উনার কাছথেকে জানতে চাইলে হুজুর বলেন- আলহামদুলিল্লাহ, বর্তমানে দেশের প্রায় ৪৫ টি জেলায় ৬৫০ টি কেন্দ্র রয়েছে এবং আরো অনেকেই যোগাযোগ করছেন তাদের প্রতিষ্ঠানে কেন্দ্র নেয়ার জন্য।ইনশাআল্লাহ। খুব শীঘ্রই দেশের সকল জেলায় পৌছবে আল-খলীল কোরআন শিক্ষা বোর্ড। তিনি বলেন,এখন থেকেই পবিত্র রমযান মাসের পূর্ণ প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। খুব গুরুত্ব সহকারে বোর্ডের সম্মানিত দায়িত্বশীলগন কাজ করে যাচ্ছেন। ইনশাআল্লাহ, আগামী ২২,২৩ মে (সোম ও মঙ্গলবার) আল-খলীল কোরআন শিক্ষা বোর্ড বাংলাদেশ এর উদ্যোগে শিক্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে।এতে সংশ্লিষ্ট ক্বারী-শিক্ষক ও দায়িত্বশীলগনদের বিশেষভাবে দাওয়াত প্রদান করা হবে। . এছাড়া তিনি বলেন- আল-খলীল কোর আন শিক্ষা বোর্ড এর সম্মানিত প্রতিষ্ঠাতা- সভাপতি ও বরুনা মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল, বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, হযরত মাওঃ শেখ বদরুল আলম হামিদী (দাঃবাঃ) আল-খলীল এর মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী কোরআননের খেদমত পৌঁছে দেয়ার চিন্তায় দিন-রাত মেহনত করে যাচ্ছেন। উনার এই অক্লান্ত পরিশ্রম ও দেশ-বিদেশের ভাই-বোনদের অনুদানের মাধ্যমেই আল-খলীল আজ এত দূর এগিয়ে এসেছে। এজন্য তিনি সবার কাছে কৃতজ্ঞ এবং আল-খলীল এর সাথে সংশ্লিষ্ট সবার দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামন করেন। . অবশেষে আমরা হুজুরের কাছথেকে বিদায় নিয়ে চলে আসি। দোয়া করি, মহান আল্লাহ তা’য়ালা যেন হুজুরের নেক হায়াত দান করেন। এবং আজীবন কোরআনের খেদমত করে যাওয়ার তাওফিক দান করেন। আমিন।

Comment

Share.

Leave A Reply