ধর্মান্তরিত মেয়ের ব্যবহারে মুগ্ধ হয়ে সিলেটে একই পরিবারের ৬জনের ইসলাম গ্রহণ

0

মহান আল্লাহ পাকের কী রহমত! ধর্মান্তরিত মেয়ের আচরণে মুগ্ধ হয়ে সিলেটের ওসমানীনগরে একই পরিবারের ৬ জন ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

ওই পরিবারের ২ মেয়ে জোসনা ও মরিয়ম ২০০৪ সালের ২৫ জানুয়ারী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেও পিতৃ পরিবারের সাথে তাদের সর্ম্পকছেদের পরিবর্তে আরো দায়িত্বশীল হয়ে উঠেন। বিষয়টিতে তৃপ্ত হন ধর্মান্তরিত মেয়েদের বাবা রাধীকা রায়।

এভাবে দিন-মাস-বছর গড়িয়ে যায়। তারপরও ধর্মান্তরিত মেয়েরা স্বামীর পরিবারে থাকলেও পিতা মাতার প্রতি তাদের সম্পর্ক গভীর করে তোলে। এতে করে ইসলাম ধর্মের প্রতি আগ্রহ বেড়ে যায় রাধীক রায়, তার স্ত্রী ও অন্যান্য সন্তানদের। এক পর্যায়ে স্বেচ্ছায় স্বজ্ঞানে ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

এরই প্রেক্ষিতে গত সোমবার আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তারা ইসলাম ধর্মের প্রতি নিজের আনুগত্য প্রকাশ করে, কালেমা শাহাদাত পাঠ করে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেন।

ইসলাম গ্রহণকারীরা হলেন, ওসমানীনগরের সাদিপুর ইউনিয়নের সাদিপুর গ্রামের মৃত রাধা রসন রায়ের পুত্র রাধীক রায় (৯০) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ), রাধীক রায়ের স্ত্রী সিন্দু রানী রায় (৭৫) (বর্তমান নাম খাদিজাতুল কুবরা), রাধীক রায়ের পুত্র নিথিশ রায় (৩৪) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ ওমর), নিথিশ রায়ের স্ত্রী ঝুমা রাণী রায় (৩৩) (বর্তমান নাম উম্মে কুলসুম), নিথিশ রায়ের দুই পুত্র সজীব রায় (১০) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ জায়েদ) ও সূর্য রায় (৪) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ হোবাইদ)।

Comment

Share.

Leave A Reply