‌শায়খুল হাদিস আল্লামা নসীব আলী কানাইঘাটী অসুস্থ; দুয়ার আবেদন!

0

আবু হাম্মাদ জালালাবাদী : ‘আমার জামেয়ার কুতুবখানা (গ্রন্থাগার) যদি আগুনে জ্বলেও যায়, আর আমার নসীব আলী থাকে, তাহলে কুতুবখানার সকল কিতাব আছে মনে করবো’।

যার ব্যাপারে এমন গর্বময় কথা বলেছিলেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত শায়খুল হাদীস, বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসাশিক্ষাবোর্ডের আজীবন চেয়ারম্যান, শায়খুল হাদীস আল্লামা নুরুদ্দীন গহরপুরী রহ.।

শুধু ইলমে হাদিসেই নয়, বরং ইলমের প্রায় সকল শাখায় যার অসামান্য দখল রয়েছে, ইলমে দ্বীনের খেদমতে নিবেদিত প্রাণ, দুনিয়া বিমুখ, সিলেটের জামিয়া হোসাইনিয়া গহরপুর হতে ছাত্রজীবন সমাপন করেই গহরপুর জামিয়াতে ইলমে দ্বীনের খেদমতের ব্যবস্থা হয়ে গেলে নিজ উস্তাদের তত্তাবধানে থেকে নাহু, সারফ, আদব, বালাগত, ফিকাহ, তাফসির, উসুলে ফিকাহ ও হাদীসের কিতাবাদিসহ সকল বিষয়ের কিতাবাদি কৃতিত্তের সাথে পড়াতে থাকেন।

পরবর্তিতে রাজাগঞ্জ মাদরাসা, বালিঙ্গা মাদরাসা, শাহপরান মাদরাসা, ছিরামপুর, কিশোরগঞ্জ কুলিয়ারচর, আজিমগঞ্জ বড়লেখা, জকিগঞ্জ হাড়িকান্দি দাওরায়ে হাদীসের মাদরাসার শায়খুল হাদীসের দায়িত্বপালন করেন।

বিগত কয়েকবছর যাবত বৃহত্তর সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বরুণা মাদরাসার শায়খুল হাদিস হিসাবে দায়িত্বপালন করছেন। হাদীস জগতের এই উজ্জ্বল নক্ষত্র, আল্লামা নসীব আলী কানাইঘাটী ‘কানাইঘাটি সানী হুযুর’ অনেকদিন যাবত অসুস্থ।

কিন্তু ইদানীং অসুস্থতা খুব বেড়ে গেছে। মাস খানেক আগে চোখের ছানি অপারেশন করা হয়েছে। গত সপ্তাহে ইবনে সিনা হাসপাতালে সিটিস্কেন পরীক্ষা করানোর পর রিপোর্টে জানা গেছে, ব্রেইনে টিউমার ও মগজে পানি জমে গেছে।

মস্তিষ্কের পানি অপসারণের পর থেকে এ পর্যন্ত দু’বার স্ট্রোক করেছেন। ক্ষণজন্মা এ মনীষার নেক হায়াতের জন্য কায়মনোবাক্যে দুআর দরখাস্ত রইল। রাব্বে কারীম হুজুরের নেক হায়াত বৃদ্ধি করে দিন!

Comment

Share.

Leave A Reply