হৃদয়বিদারক, অশ্রুনির্ঝর তাজা কাহিনি

0

মুফতি জিয়াউর রহমান : জন্মের একদিনের মাথায় মাকে হারিয়েছে৷ এখন তার বয়স দু’বছর৷ দাদির কাছে মায়ের আদর পেয়ে বড় হচ্ছিল৷ সেও দাদি ছাড়া কিছু বোঝে না৷ বয়োবৃদ্ধ দাদিও তাকে ছাড়া যেন একমুহূর্ত যায় না৷ তারা তিন ভাই৷ বড়ভাই (৭ বছর) পার্শবর্তী এক কওমি মাদরাসায় কৃতিত্বের সঙ্গেই পড়াশোনা করছে৷
এরই ভেতর দুই সৎমায়ের দেখা পেয়েছে তারা৷ বর্তমানে যেটা এসেছে, প্রকৃত সৎমায়ের সব গুণাগুণের (!) বিবরণ শোনা যাচ্ছে সবার মুখ থেকেই৷ অযত্ন-অবহেলায় যেন কোনো ত্রুটি নেই৷ তবুও তাদের দিন কাটছিলো খুবই নরম দিলের এক আদুরে দাদি পেয়েছিলো বলে৷ সৎমায়ের অবহেলা, অযত্ন দাদি পুষিয়ে নিয়েছিলেন বলে৷

কিন্তু দুঃখ যার কপালে, একটুখানি সুখও চলে যায় কোনো এক বিকেলে৷ হঠাৎ একদিন চাচাদের মাঝে সম্পত্তি নিয়ে লাগল তুমুল ঝগড়া৷ অবশেষে মামলায় পর্যন্ত গড়াল৷ এই মা-হারা এতিম শিশুদের নিয়ে বাড়ি থেকে চলে গেলো মানুষরূপী জানোয়ার- বাবা৷ গিয়ে উঠল পাশের গ্রামের আরেক বাড়িতে৷ সন্তানরা আরেক দফা এতিম হয়ে গেলো৷ জনমদুঃখী কোলের শিশুটি ফ্যালফ্যাল করে চেয়ে থাকে দাদির পথপানে৷ দাদি বাড়িতে বসে শাড়ির আঁচল দিয়ে চোখের পানি মোছেন সারাক্ষণ৷

মাঝেমধ্যে এসে দূর থেকে নাতিকে দেখে অশ্রুসজল চোখে আবার চলে যান৷ কোলে নিতে মন চাইলেও পারেন না৷ কোলের শিশুটিও দাদিকে দেখে হাত বাড়ায় মায়ের অবর্তমানে একমাত্র শান্তির নীড়ে এসে একটুখানি প্রশান্তি পেতে৷ কিন্তু তাদের মধ্যে বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে আছে হৃদয়হীন এক দেওয়াল৷
আজ একটু সুযোগ এসেছিল নাতিকে কোলে নেয়ার৷ বয়োবৃদ্ধ দাদির হাড্ডিসার কোল পেয়ে ফুটফুটে মাসুম বাচ্চাটি যেন রাজার সিংহাসন পেয়েছে৷ ঝাপটে ধরেছে দাদিকে; যেন কেউ ছাড়িয়ে নিতে না পারে৷ মাথায় হাত বুলিয়ে দিলাম৷ কোলে এনে আদর করতে চাইলেও পরম প্রাপ্তির কোল ছেড়ে কি অপরিচিত কোলে আসা যায়?

অবশেষে বেশীক্ষণ স্থায়ী হলো না দাদি-নাতির এই কাঙ্ক্ষিত বন্ধন৷ নরাধম বাবা মনে করেছে দাদি হয়ত নাতিকে বাড়িতে নিয়ে চলে যাবেন৷ সেই শঙ্কায় বৃদ্ধা মায়ের কোল থেকে টান মেরে নিয়ে গেলো কচি বাচ্চাটিকে৷ দাদি অশ্রুসিক্ত চোখে ফিরলেন বাড়ির পথে৷ নাতি বাবা নামের ‘তালই’র কোল থেকে বিচ্ছেদের চাহনি নিয়ে চেয়ে থাকল নির্বাক৷ দুবছরের শিশু-বাচ্চাটির অশ্রু তো সেই কবে শুকিয়ে আছে৷ এদিকে আমার অবস্থা সুবিধার না৷ নিজেকে সংবরণ করতে পারছিলাম না৷

দুআ করি আল্লাহ তাআলা যেন মা-হারা এই তিনটি এতিম বাচ্চার উত্তম কফিল হয়ে যান৷

Comment

Share.

Leave A Reply