ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন আতিক

0

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন ব্যবসায়ীিও বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি আতিকুল আতিকুল ইসলাম। শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার নির্বাচনের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় আতিকুলের প্রার্থিতা চূড়ান্ত হয়।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি এ উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হবেন আতিকুল ইসলাম।

এর আগে সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। এরপর নৌকার প্রার্থী হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উপনির্বাচনে আতিকুল ইসলামকে চূড়ান্ত করা হয়।

এর আগে আনিসুল হকের উত্তরসূরি হতে প্রচারে নামার পর আতিকুল বলেছিলেন, আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের ইঙ্গিত পেয়েই মাঠে নেমেছেন তিনি।

২০১৫ সালে ঢাকা উত্তরের প্রথম নির্বাচনে মেয়র পদে ব্যবসায়ী আনিসুল হককে সমর্থন দিয়েছিল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। নির্দলীয় ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ওই সমর্থনকে চমক হিসেবেই দেখা হয়েছিল।

আনিসুল হকের মৃত্যুতে মেয়র পদে উপ-নির্বাচন হচ্ছে। এ নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।তার দুই দিন আগে নৌকার প্রার্থী ঠিক করতে নেতাদের নিয়ে বসেন শেখ হাসিনা; ডাকা হয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আতিকসহ ১৮ জনকে।

সাবেক সংসদ সদস্য এইচ বি এম ইকবাল, উত্তরের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শামীম হাসানসহ ১৮ জনের মধ্য ধেকে আতিককেই বেছে নেয় ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

আনিসুল হকের মতোই বিজিএমইএর সভাপতি ছিলেন আতিক। তিনি বলে আসছিলাম, প্রয়াত আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করাই তার প্রাথমিক লক্ষ্য।

ব্যবসায়ী থেকে রাজনৈতিক দায়িত্ব পালনে আসার আগ্রহের বিষয়ে আতিক বলেছিলেন, আনিসুল হক অরাজনৈতিক ব্যক্তি হয়েও কী সুন্দর করে ঢাকা সাজিয়েছেন। এ থেকেই প্রমাণ হয় যে রাজনীতিবিদরা ব্যবসায় আসতে পারেন, ব্যবসায়ীরা রাজনীতিতে আসতে পারেন।

প্রসঙ্গত, ব্যবসায়ী আতিকুলও বিজিএমইএর সভাপতি ছিলেন ২০১৩-১৪ মেয়াদে। এখন তিনি পোশাক খাতের শ্রম পরিস্থিতি ও পণ্যের মান উন্নয়নে গঠিত ‘সেন্টার অফ এক্সেলেন্স ফর বাংলাদেশ অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রিজ’-সিবাইয়ের সভাপতি।

প্রসঙ্গত, রাজনীতিতে নবীন আতিকুল ইসলামের এক ভাই মো. তোফাজ্জাল ইসলাম সাবেক প্রধান বিচারপতি। তার আরেক ভাই মইনুল ইসলাম সেনাবাহিনীর সাবেক লেফটেন্যান্ট জেনারেল।

Comment

Share.

Leave A Reply