বেফাকের কাউন্সিল; আমাদের প্রত্যাশা

0

ইমদাদুল হক নোমানী :

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ। দেশব্যাপী বিস্তৃত শীর্ষ কওমি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড। ছরেতাজ উলামা-মাশায়েখ ও সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধেয় মুরব্বী, উস্তাযে মুহতারাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী দা.বা. এর রাহবার; চেয়ারম্যান।

আজ ১২ ফেব্রুয়ারি জাতীয় এ বোর্ডের কাউন্সিল সম্মেলন। মিডিয়া সূত্রে জানা যায়, সারাদেশ হতে প্রায় সাড়ে নয়হাজার ডেলিগেট সম্মানিত মুহতামিম সাহেবগণ হাজির হচ্ছেন এ সম্মেলনে। জাতির ভবিষ্যৎ, আদর্শ মানুষ গড়ার কারিগর দায়িত্বশীল উলামা হযরতগণের এ মাজমা সময়ের এ ক্লান্তিকালে একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। অনেক প্রত্যাশা ও সময়ের সঠিক সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় পুরো দেশ; দেশের আপামর জনতা। বিশেষত কওমি অঙ্গনে বিরাজ করছে, প্রবল উৎসাহ, জল্পনা-কল্পনা।

যেহেতু কাউন্সিল সম্মেলন, তাই এখানে ঘোষণা হবে নতুন নেতৃত্বের। আবার হয়তোবা অনেক পুরাতন দায়িত্বশীল হযরত হতে পারেন স্বস্থানে ভারমুক্ত। সময়ের চাহিদানুযায়ী নবীন-প্রবীণ, মুরব্বী-নওজোয়ানদের সমন্বয়ে একটি গতিশীল, দক্ষ ও গ্রহণযোগ্য ফোরাম অবশ্যই সকলের প্রত্যাশা। তবে গঠনতন্ত্র বিরোধী প্রকাশ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, ন্যুনতম ইলম ও ক্যারিয়ারবিহীন মুদাররিস ব্যক্তি, ছাওয়াল মুরব্বী, সূত্রে দান ও সিন্ডিকেটদের অতিমাত্রায় পদায়ন এবং ক্ষমতা প্রদানে যেনো বেফাক প্রশ্নবিদ্ধ না হয়। এটা কারো কাম্য নয়। এহেন সিদ্ধান্ত হীতেবিপরীত হয়। মফস্বলে এর বদ আছর পড়ে। ঐক্য, ঐকান্তিকতা ও কাজের সম্প্রসারণ এবং মজবুতিতে ব্যাঘাত সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। একসময় বিবেদ, বিভাজন ও বিকল্প চিন্তা দেখা দেয়। যা আমাদের কারোই প্রত্যাশা নয়।

আল্লাহ সকল অনাকাঙ্ক্ষিত ও অপ্রত্যাশা থেকে হেফাযত করুন। সময়ের সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার তাওফিক দান করুন। সফল হোক সম্মেলন। যোগ্য ব্যক্তিত্ব ও দুঃসময়ের সাথী প্রবীণ মুরব্বীদের যথাযথ মূল্যায়ন হোক। এগিয়ে যাক প্রিয় বেফাক। শুভকামনা।

সম্পাদক, কওমিকণ্ঠ

Comment

Share.

Leave A Reply