বেফাকের নতুন কমিটি; ২৭ জন সহ-সভাপতি, সহকারি মহাসচিব ৮

0

বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকের পূর্ব ঘোষিত ১০ম কাউন্সিল আজ সোমবার বেফাক সসভাপতি ও হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে ঢাকার ফরিদাবাদ মাদরাসায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় নতুন কমিটির ঘোষণা করা হয়েছে। এতে পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন হাটজাহারী মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী এবং ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব থেকে পূর্ণ মহাসচিব নির্বাচিত হয়েছেন ফরিদাবাদ মাদরাসার মুহতামিম ও শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল কুদ্দুস।

সিনিয়র সহসভাপতি হয়েছেন জামিয়া শরইয়্যাহ মালিবাগের মুহতামিম আল্লামা আশরাফ আলী।

ঘোষিত নতুন কমিটিতে দেশের শীর্ষস্থানীয় ২৭ জন আলেমকে সহসভাপতি করা হয়েছে। তারা হলেন,

আল্লামা আজহার আলী আনোয়ার শাহ (জামিয়া ইমদাদিয়া কিশোরগঞ্জ), আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী (বারিধারা), মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস (মনিরামপুর যশোর), আল্লামা মোস্তফা আযাদ (আরজাবাদ), প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান (সিলেট), মাওলানা আবদুল কুদ্দুস (মিরপুর), মাওলানা আবদুল বারী ধর্মপুরী (মৌলভীবাজার), মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী (বাবুনগর, চট্টগ্রাম), মাওলানা নূরুল ইসলাম আযাদী (ওলামাবাজার ফেনী), আল্লামা মাহমুদুল হাসান (যাত্রাবাড়ী), মাওলানা আবদুর রহমান হাফেজ্জী (মোমেনশাহী), মাওলানা আবদুল হামিদ (মধুপুর), মাওলানা নূরুল ইসলাম (খিলগাঁও), মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী (জামিয়া নূরিয়া), মাওলানা সাজিদুর রহমান (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), মাওলানা সালাহুদ্দীন (নানুপুর, চট্টগ্রাম), মাওলানা ছফিউল্লাহ (জামিয়া দ্বীনিয়া, মতিঝিল), মুফতি জাফর আহমদ (ঢালকানগর), মুফতি ফয়জুল্লাহ (লালবাগ), মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু (সিলেট), মাওলানা আনাস মাদানী (হাটহাজারী) মাওলানা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী, মাওলানা বদরুদ্দীন (সিলেট), মাওলানা আশেক এলাহী (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), মাওলানা ফয়জুল্লাহ (মাদানীনগর)।

নতুন কমিটিতে সহকারী মহাসচিব নির্বাচিত হয়েছেন ৮ জন।

তাঁরা হলেন, মাওলানা মাহফুজুল হক (মুহতামিম, জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া ঢাকা), মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী (মুহতামিম, ইসলামবাগ মাদরাসা) মুফতি নুরুল আমিন (মুহাদ্দিস, ফরিদাবাদ মাদরাসা ঢাকা), মুফতি কেফায়েতুল্লাহ আজহারী (আল মানহাল কওমী মাদরাসা উত্তরা), মুফতি নেয়ামাতুল্লাহ (জামিয়া সোহবানিয়া দারুল উলুম ঢাকা), মাওলনা শামসুল হক (দ্বীনি শিক্ষাবোর্ড হবিগঞ্জ), মালানা নজরুল ইসলাম (সিলেট), মাওলানা মোবারক উল্লাহ (এদারায়ে তালিমিয়া বি.বাড়িয়া), মাওলানা জামালুদ্দীন মাহমুদ (তালিমি বোর্ড মাদানীনগর)।

সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর বলেন, আমাকে ১০ বছর ধরে বেফাকের সভাপতি করায় সবাইকে ধন্যবাদ। যদিও আমি এ পদের যোগ্য নই, তবু প্রাণপণে চেষ্টা করছি বেফাককে সম্প্রসারণ করার।

তিনি আলেমদের সব সময় বাতিল মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ থাকার পরামর্শ দেন।

সংবাদউৎস:আওয়ারইসলাম

Comment

Share.

Leave A Reply