ছয়টি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রই ফাঁস!

0

এবার গণিতের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। এর ফলে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ধারায় যোগ হলো গণিতের প্রশ্নপত্রও।

আজ শনিবার পরীক্ষা শুরুর প্রায় দেড় ঘন্টা আগেই প্রশ্নের স্ক্যানড কপি পাওয়া গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এর আগে বাংলা এবং ইংরেজি প্রশ্নের প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র, ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষার প্রশ্নপত্রও ফাঁস হয়। এ নিয়ে টানা ছয়টি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রই ফাঁস হলো।

শনিবার সকাল ১০টায় এসএসসি ও সমমানের গণিত পরীক্ষা শুরু হয়ে দুপুর ১ টায় শেষ হয়। পরীক্ষা শুরুর আগে সকাল ৮ টা ৫৯ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপের একটি গ্রুপে গণিতের ‘খ-চাঁপা’ সেটের প্রশ্নপত্রটি পাওয়া যায়। এরপর ফেসবুকসহ অন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্নপত্রটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। যা শনিবার অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সঙ্গে হুবহু মিল রয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি বাংলা প্রথম পত্রের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া যায়। বাংলা প্রথম পত্রের বহুনির্বচনি ‘খ’ সেট পরীক্ষার প্রশ্নও ফেসবুকে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের সাথে হুবহু মিলে যায়। ওই প্রশ্ন পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগেই ফেসবুকে পাওয়া যায়।

৩ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরুর প্রায় এক ঘণ্টা আগে বাংলা দ্বিতীয় পত্রের নৈর্ব্যক্তিক ‘খ’ সেটের উত্তরসহ প্রশ্নপত্র একই কায়দায় পাওয়া যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। যার সাথে ওই দিন অনুষ্ঠিত হওয়া প্রশ্নের হুবহু মিল পাওয়া যায়।

৫ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরুর প্রায় দুই ঘণ্টা আগে সকাল ৮টা ৪ মিনিটে ইংরেজি প্রথমপত্রের ‘ক’ সেটের প্রশ্ন ফাঁস হয়। যার সাথে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রশ্নপত্রের সঙ্গে হুবহু মিল পাওয়া যায়।

৭ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরুর প্রায় ৫০ মিনিট আগে সকাল ৯টা ১০ মিনিটে ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের ‘খ’ সেটের প্রশ্নপত্রটি হোয়াটসঅ্যাপের একটি গ্রুপে পাওয়া যয়। যা অনুষ্ঠিত হওয়া প্রশ্নপত্রের সঙ্গে হুবহু মিল পাওয়া যায়।

৮ ফেব্রুয়ারি একইভাবে ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষার প্রশ্নপত্রটিও পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে পাওয়া যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।

এ বিষয়ে ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তপন কুমার সরকার সাংবাদিকদের বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়ে একটি কমিটি কাজ করছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা তদারকিতে আছি। আশা করি এর একটা সুষ্ঠু সরাহা করতে পারবো। #আরটিএনএন

Comment

Share.

Leave A Reply