একরাতেই নারী থেকে পুরুষে রূপান্তরিত হলেন খাদিজা

0

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে খাদিজা খাতুন সেতু নামে ১৯ বছর বয়সী এক তরুণী এক রাতের ব্যবধানে তরুণে রূপান্তরিত হয়েছে। সে তাড়াশ সদর ইউনিয়নের তাড়াশ গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার হাসমত আলীর মেয়ে। এ ঘটনার পর পরিবারের পক্ষ থেকে তার নাম পরিবর্তন করে মোহাম্মদ সাহুল সিদ্দিকী রাখা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। রূপান্তরিত তরুণকে দেখতে স্থানীয় মানুষ তাদের বাড়িতে ভিড় করছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন হরমনজনিত কারণে এ পরিবর্তন হয়েছে।

নিজের রুপান্তরের বিষয়ে সাহুল সিদ্দিকী জানান, গত মার্চ মাসের ৩০ তারিখ রাতে ঘুম থেকে ওঠে হঠাৎ তার শারীরিক পরিবর্তন লক্ষ্য করেন। পরে বাবা-মা ও নিকট আত্মীয়দের বিষয়টি জানান। এরপর এক অভিজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে নারী থেকে পুরুষে রুপান্তরিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন।

খাদিজার বাবা হাসমত আলী জানান, মেয়ে হিসেবেই জন্মগ্রহণ করেছিল খাদিজা খাতুন সেতু। তাড়াশ থেকে এইচএসসি পাশ করার পর ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে টেক্সাটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং লেখাপড়া করত। কয়েকদিন আগে তার কয়েকজন সহপাঠী প্রথমে মেয়ে খাদিজাকে ছেলেতে রূপান্তরিত হওয়ার বিষয়টি জানান। এরপর খাদিজা নিজেই তাদের বিষয়টি অবহিত করেন।

সেতুর মা নাজমা খানম জানান, তিনি অনাবৃত করে দেখেছেন মেয়েকে। তার শারীরিক পরিবর্তন ঘটেছে। নারী থেকে পুরুষে রুপান্তর হয়েছেন সেতু। একই সঙ্গে তার জীবনযাপন ও আচরণগত পরিবর্তন এসেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এহিয়া কামাল জানান, হরমনের কারণে এরকম দৈহিক পরিবর্তন হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়।

Comment

Share.

Leave A Reply