আল্লামা সালেম কাসেমীর ইন্তেকালে হেফাজত মহাসচিব আল্লামা বাবুনগরীর শোক প্রকাশ

0

ইন’আমুল হাসান ফারুকী : ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ (ওয়াকফ) এর মহাপরিচালক, বর্তমান বিশ্বের বরেণ্য আলেমেদীন, অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের নায়েবে সদর, আল্লামা সালেম কাসেমীর ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করেছেন দেশের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক ধর্মীয় সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও দারুল উলূম হাটহাজারীর সহযোগী পরিচালক শাইখুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী ৷

১৪ এপ্রিল শনিবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শোকাবার্তায় হেফাজত মহাসচিব বলেন, আল্লামা সালেম কাসেমী দারুল উলুম দেওবন্দের দীর্ঘদিনের সফল মোহতামীম ও ওয়াকফ দেওবন্দের প্রতিষ্ঠাতা কারী তৈয়্যব রহ. এর সুযোগ্য সন্তান৷অনেক উঁচু মাপের আলেম ছিলেন তিনি৷মরহুমের বয়ান বক্তৃতা ছিল হৃদয়স্পর্শী৷সর্বমহলে তাঁর বয়ানের ছিল সু-খ্যাতি৷ বয়ান বক্তৃতায় তার দৃষ্টান্ত বিরল৷অসাধারণ বয়ানের জন্য তিনি খতীবুল ইসলাম ইসলাম খ্যাতি লাভ করেছিলেন৷

আল্লামা সালেম কাসেমী স্বীয় পিতা কারী তৈয়্যব রহ. এর জীবন্ত প্রতিচ্ছবি ছিলেন৷

বরেণ্য এ আলেমের মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোক প্রকাশ করছি এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করছি।

স্মৃতিচারণ করে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, ১৯৯৩ সনে ভারত সফরে ওয়াকফ দেওবন্দে আল্লামা সালেম কাসেমীর সঙ্গে আমার সৌজন্য সাক্ষাত হয়েছে৷ তিনি আমার অনেক মেহমানদারী করেছেন৷ তাঁর বর্ণনাতীত আপ্যায়ন মেহমানদারী আমার আজো মনে পড়ে৷

আল্লামা বাবুনগরী বলেন, সালেম কাসেমী অনেক বড় আল্লাহর ওলী ছিলেন৷ তিনি আমার প্রিয় ব্যক্তিত্ব৷ ভারত সফরকালে তিনি আমার উর্দুভাষায় রচিত গ্রন্থ “দাড়ি আওর ইসলাম” নামক বইয়ের দীর্ঘ অভিমত লিখেছেন এবং বইটির ভূয়সী প্রসংশা করেছেন৷ আমার লিখিত দাড়ি আওর ইসলাম বইয়ে তার লিখিত অভিমত এখনো সংরক্ষিত আছে৷ মরহুমের ইন্তেকালের খবর শুনে আজ অতীতের সব স্মৃতি মনে পড়ছে৷

আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, ভারত সফর ছাড়াও আল্লামা সালেম কাসেমীর সঙ্গে আমার একাধিকবার সাক্ষাত হয়েছে৷মরহুম সালেম কাসেমী দীর্ঘ হায়াতে মাদারেসে কওমিয়্যার সহ দ্বীন ইসলামের অনেক বড় বড় খেদমত আঞ্জাম দিয়েছেন। পুরোটা জীবন তিনি ইসলামের জন্য ব্যয় করেছেন৷শীর্ষ এ আলেমের মৃত্যুতে ইসলামী অঙ্গনে যে শূন্যতার সৃষ্টি হয়েছে তা কভু পূরণ হবার নয়৷ইতিহাস তার অমর কীর্তি স্মরণ রাখবে।

মহান প্রভুর দরবারে আমি দুআ করি, আল্লাহ তাআলা তার সকল দ্বীনি খেদমতকে কবুল করুন এবং ত্রুটি-বিচ্যুতি ক্ষমা করে জান্নাতের সর্বোচ্চ স্থান দান করুন।

প্রসঙ্গত, ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ (ওয়াকফ) এর মহাপরিচালক, খতিবে ইসলাম মাওলানা সালেম কাসেমী ২২শে জমাদিউস সানী ১৩৪৪ হিজরী মুতাবেক ৮ ই জানুয়ারি ১৯২৬ খ্রিস্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন এবং ২৬শে রজব ১৪৩৯ হিজরী মুতাবেক ১৪ই এপ্রিল ২০১৮ খ্রিস্টাব্দে রবিবার বিকেল ৩ টার দিকে ইন্তেকাল করেছেন৷ ১৪ ই এপ্রিল রাত ১০ এহাতায়ে মুলসুরী নওদারায় মরহুমের নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷

Comment

Share.

Leave A Reply