মৌলভীবাজারে আগাম ঈদ পালন করলেই প্রতিরোধ

0

মৌলভীবাজারে ইসলামের অপব্যাখ্যা-অপপ্রচার ও অগ্রীম ঈদ পালনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, মাওলানা, এলাকার সচেতন নাগরিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

গত ৮ জুন শুক্রবার রাত ১০ থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত মৌলভীবাজার পৌর কনফারেন্স সম্মেলন কক্ষে অনুষ্টিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন মৌলভীবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ আসাদ হোসেন মক্কু।

এ সময় বক্তব্য রাখেন- পৌর কাউন্সিলর নাহিদ আহমদ, সিরাজ নগর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ শিব্বির আহমদ সিরাজনগরী, শাহ মোস্তফা (রহঃ) দরগাহ মসজিদের ইমাম হাফেজ শামিম আহমদ, শেখ বুরহান উদ্দিন (রঃ) সোসাইটির চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান, মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি মশাহিদ আহমদ, দীপ্ত নিউজ সম্পাদক দুরুদ আহমদ ও ইসলামীক ফ্রন্ট সভাপতি সাবেক ছাত্র নেতা জামাল আহমদসহ খেলাফত মজলিশ, ইসলামী ছাত্র সেনা, কওমি মাদ্রাসার বিভিন্ন মাওলানা, স্থানীয় বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

মতবিনিময় সভায় অগ্রিম ঈদ পালনকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ কমিটি গঠন করে ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানানো হয়।

সভায় বক্তারা বলেন- আহলে হাদিস ওরফে লা-মাযহাবীদের কর্তৃক ইসলামী শরীয়তে মীমাংসিত বিষয়গুলোর মধ্যে বিভেদ, অপব্যাখ্যা ও অপপ্রচার করে আসছেন। ওরা ইসলামের নামে ইহুদী খৃষ্টানদের এজেন্ট বাস্তবায়ন করছে। বাংলার জমিনে সহজ-সরল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ধোকা দিয়ে তাদের নিজ স্বার্থ হাসিল করছে। হানাফী মাজহাবের দাবীদার হিসেবে বিভিন্ন ইসলামিক দল ও গ্রুপের নেতৃবৃন্দ এক টেবিলে সমবেত হয়ে এবং ধর্মিয় সঙ্কট কালে একই পতাকা তলে সবাইকে একত্রিত হয়ে কথিতদের বিরুদ্ধে আন্দোলন প্রক্রিয়া গঠনের আহবান জানান। তবে এ ব্যাপারে কোন লামাজহাবি বা আহলে হাদিসের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সভায় সর্বদলীয় ও সর্বস্তরের জনগনের উপস্থিতিতে পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমানকে আহবায়ক করে একটি প্রতিরোধ কমিটি গঠন করার সিন্ধান্ত গ্রহন করা হয়। সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ জেলা শাখার সদস্য মাওলানা মোঃ সিদ্দিকুর রহমান।

মোনাজাত করেন হাফেজ হাসান আহমদ।

Comment

Share.

Leave A Reply