এবার হজের খতিব শায়খ ড. হুসাইন

0

মুসলিম উম্মাহর আর্থিক ও শারীরিক ইবাদত হজ। আগামী ৯ জিলহজ মোতাবেক ২০ আগস্ট আরাফাতের ময়দানে আল্লাহর মেহমানদের উপস্থিতির মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্ব মুসলিম সম্মিলন। ঐতিহাসিক এ বিশ্ব মুসলিম সম্মিলনে হজের খুতবা প্রদান করবেন নতুন শায়খ বিচারপতি ড. হুসাইন ইবনে আবদুল আজিজ ইবনে হাসান ইবনে আবদুল আজিজ ইবনে হুসাইন আল শেখ।

সৌদি আরবের প্রেস এজেন্সি এএসপি সূত্রে জানা যায়, হারামাইন আশ-শরিফাইনের খাদেম বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদ এক রাজকীয় ফরমান জারির মাধ্যমে এ বছর আরাফাতের ময়দানে খতিব হিসেবে তাকে নিয়োগ দেন।

শায়খ ড. হুসাইন আলুশ শায়খ পবিত্র মসজিদে নববির সম্মানিত ইমাম ও খতিব। তিনি মদিনার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতির দায়িত্বও পালন করছেন।

বিচারপতি শায়খ ড. হুসাইন ইবনে আবদুল আজিজ ইবনে হাসান ইবনে আবদুল আজিজ ইবনে হুসাইন আল শেখ বনি তামিম গোত্রের শেখ মুহাম্মদ বিন আবদুল ওয়াহহাব-এর বংশধর।

ছোট বেলা থেকেই লেখা-পড়ার প্রতি মনোযোগী শায়খ ড. হুসাইন প্রাথমিক শিক্ষা শেষে আশ-শারইয়া কলেজ থেকে স্টারমার্ক পেয়ে কৃতিত্বের সঙ্গে উত্তীর্ণ হন। উচ্চতর পড়াশোনায়ও তিনি প্রথমস্থান অর্জন করেন।

শায়খ ড. হুসাইন আলুশ শায়খ ইসলামিক আইনের ওপর গুরুত্বপূর্ণ গবেষণায় বেশ সুনাম অর্জন করেন। ইসলামি আইনশাস্ত্রের পাশাপাশি তিনি সমাজকর্মসহ আইনশাস্ত্রের ওপর উচ্চতর ডিগ্রী অর্জন করেন।

কর্ম জীবনে বিচারপতি শায়খ ড. হুসাইন ১৪০৬ হিজরিতে মদিনার বিচার বিভাগীয় সহকারী হিসেবে নিযুক্ত হন। অতঃপর ১৪১১ হিজরিতে তিনি নাজরানের হাইকোর্টে যোগদান করেন।

নাজরানে এক বছর থাকার পর ১৪১২ হিজরিতে মদিনার সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি হেসেবে যোগ দান করেন। এখনো তিনি সেখানেই কর্মরত আছেন।

বিচারপতি হওয়ার পর শায়খ ড. হুসাইন আলুশ শায়খ ১৪১৮ হিজিরিতে মদিনার মসজিদে নববিতে ইমাম হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন। সৌদি আরবের বাদশাহ খাদেমুল হারামাইন আশ-শরিফাইন সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদ তাকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা করেন।

উল্লেখ্য যে, ১৯৮১ সাল থেকে সৌদি আরবের গ্রান্ড মসজিদের খতিব ও আরাফার ময়দানের খতিবের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন দৃষ্টিহীন ইমাম শায়খ আবদুল আজিজ। দীর্ঘ ৩৫ বছর পর তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে অবসর গ্রহণ করেন।

২০১৬ সালে রাজকীয় ফরমানের মাধ্যমে নতুন খতিব হিসেবে মুফতি ড. সালেহ বিন হুমাইদকে সৌদি আরবের গ্র্যান্ড মসজিদের ইমাম ও খতিব নির্বাচিত করা হলেও তিনি হজের খুতবা দেননি। সেবছর প্রথম বারের মতো হজের খুতবা প্রদান করেন শায়খ ড. আবদুর রহমান সুদাইস।

২০১৭ সালে রাজকীয় ফরমানের মাধ্যমে হজের খুতবা প্রদানে সৌদি আরব আবার নতুন খতিবের নাম প্রকাশ করেন। গতবার হজের খুতবা দেন নতুন খতিব বিশ্বনন্দিত ইসলামিক স্কলার, সৌদি আরবের সর্বোচ্চ ওলামা পরিষদের সদস্য, বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের রাজকীয় উপদেষ্টা শায়খ ড. সাআদ আশ শাসরি।

এবার আবারও হজের খুতবা প্রদানে নতুন শায়খ নির্বাচন করে সৌদি আরব। তিনি আর কেউ নন, তিনি হলেন পবিত্র মসজিদে নববির ইমাম ও খতিব, মদিনার সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি শায়খ ড. হুসাইন আলুশ শায়খ।

Comment

Share.

Leave A Reply