কুরআন প্রতিযোগিতার প্রাইজমানি ১০ লাখ পাউন্ড!

0

২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে ২৬তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে মিসরে। মিসরের আওকাফ মন্ত্রণালয় এবারের কুরআনুল কারিম প্রতিযোগিতার জন্য ১০ লাখ পাউন্ড প্রাইজমানি নির্ধারণ করেছে।

মিসরের আওকাফ মন্ত্রণালয় জাতীয় পর্যায়ে, প্রতিবন্ধীদের জন্য এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কুরআন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। এ ধারাবাহিকতায় ১০ লাখ পাউন্ড প্রাইজ মানির আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতা শীঘ্রই আয়োজন করবে।

আওকাফ মন্ত্রণালয় আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কুরআন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে ১০ লাখ মিশরীয় পাউন্ড নির্ধারণ করেছে। আর কুরআন প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য শীর্ষ স্থানে উত্তীর্ণদের জন্য ২ লাখ মিশরীয় পাউন্ড নির্ধারণ করেছে।

দেশটির জাতীয় পর্যায়ে মোট চারটি বিভাগে এ কুরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। বিভাগগুলো হলো- তাজবিদ সহকারে সম্পূর্ণ কুরআন হেফজ, তাজবিদ সহকারে সাড়ে ২২ পারা পর্যন্ত হেফজ, তাজবিদ সহকারে ১৫ পারা পর্যন্ত হেফজ এবং তাজবিদ সহকারে সাড়ে ৭ পারা পর্যন্ত হেফজ।

জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণকারীদের সর্বোচ্চ বয়স হবে ২৫ বছর। বয়স প্রমাণে সবাইকে জন্মসনদ কিংবা জাতীয় পরিচয় নিয়ে নিজ নিজ অঞ্চলে অংশগ্রহণ করতে পারবে।

তবে মিসরের জাতীয় পর্যায়ের এ প্রতিযোগিতায় দেশটির মসজিদে ইমাম, খতিব ও তাজবিদের শিক্ষকগণ অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

উল্লেখ্য যে, এ বছর মিসরের কায়রোতে অনুষ্ঠিত ২৫তম আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ৫০টি দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন হাফেজ মুজাহিদুল ইসলাম। সে আন্তর্জাতিক কারি হাফেজ নাজমুল হাসান কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত রাজধানীর যাত্রাবাড়িস্থ তাহফিজুল কুরআন ওয়াসসুন্নাহ মাদরাসার কিতাব বিভাগের ছাত্র। মিসরের ২৫তম আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতা গত ২৪ মার্চ শুরু হয়ে ২৯ মার্চ শেষ হয়েছে।

মিসরের অ্যানডাউমেন্টস অ্যান্ড ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে আয়োজিত ২৬তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতা ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসের অনুষ্ঠিত হবে। এতে সারা বিশ্ব থেকে আগত হাফেজে কুরআনগণ অংশগ্রহণ করবেন। বাংলাদেশের প্রতিনিধিও ২৬তম আন্তর্জঅতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।

Comment

Share.

Leave A Reply