গুগল-ফেসবুক সংবাদমাধ্যমের আয় ‘লুটপাট’ করছে

0

গুগল ও ফেসবুক ইচ্ছামতো খবর ‘লুটপাট’ করছে বলে অভিযোগ তুলেছে ইউরোপের সর্ববৃহৎ বার্তা সংস্থাগুলো। খবর থেকে বৃহৎ ইন্টারনেট প্রতিষ্ঠানগুলোর যে লাভ হয় তা আরও বেশি পরিমাণে তাদের সঙ্গে ভাগ করে নেয়ারও দাবি জানিয়েছে তারা।

সোমবার ২০টি সংবাদ সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত এক কলামে এই দাবি জানানো হয়।

এসব সংস্থার মধ্যে রয়েছে ফ্রান্সের এজেন্সি ফ্রান্স প্রেস (এএফপি), ব্রিটেনের প্রেস অ্যাসোসিয়েট এবং জার্মানির ডয়চে প্রেস আগেন্টুর। তারা ‘এই জঘন্য বৈষম্য’ দূর করতে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টকে কপিরাইট আইন বর্তমানের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করার আহ্বান জানান।

‘সংবাদমাধ্যমের কন্টেন্ট বা খবর এবং এগুলোতে দেয়া বিজ্ঞাপন থেকে আসা মুনাফা ইন্টারনেটের সুবৃহৎ প্রতিষ্ঠানগুলো লুটে নেয়ায় তা ভোক্তা ও গণতন্ত্র উভয়ের জন্যই হুমকি হয়ে উঠেছে’ বলা হয় ওই কলামে।

বিভিন্ন ওয়েবসাইট বা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে খবর, গান বা মুভির মতো বিভিন্ন কন্টেন্ট ব্যবহার করা হলে তার জন্য আরও বেশি টাকা দেয়ার ব্যবস্থা নতুন কপিরাইট আইনের কথা ভাবছে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্ট। এই উদ্দেশ্যে পার্লামেন্টের আইনপ্রনেতারা এ মাসেই বিতর্ক শুরু করবেন।

এই আইনের প্রথম খসড়াটি জুলাই মাসে বাতিল করা হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এর কঠোর বিরোধিতা করে এবং ইন্টারনেটের স্বাধীনতায় বিশ্বাসীরা মনে করেন, কন্টেন্টের ওপর নিয়ন্ত্রণ বাড়ানো হলে পাঠক ও ভোক্তাদের আরও বেশি খরচ বেড়ে যাবে।

বার্তা সংস্থাগুলোর যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ২০১৭ সালে ফেসবুকের আয় হয়েছে ৪০ বিলিয়ন ডলার এবং এর মধ্যে ১৬ বিলিয়ন ডলার তাদের মুনাফা। ওই বছরই গুগলের আয় হয় ১১০ বিলিয়ন ডলার যার মধ্যে মুনাফার পরিমাণ ১২.৭ বিলিয়ন ডলার।

‘কন্টেন্টের জন্য যথার্থ মূল্য দেয়ার মতো সামর্থ্য এই প্রতিষ্ঠানগুলোর নেই তা কে বলবে’ প্রশ্ন রাখে সংবাদমাধ্যমগুলো।

‘আমরা আসলে যা চাইছি, তা হলো খবর বেচে যা লাভ হচ্ছে তার ন্যায্য মূল্য আদায়ের ব্যবস্থা করা। সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের মূল্যবোধ নিশ্চিত করতে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের আইনপ্রণেতাদের উচিত কপিরাইট আইন সংশোধন করা’ বলা হয় ওই কলামে।

Comment

Share.

Leave A Reply