আল্লামা আহমদ শফিকে স্বাধীনতা পদক দেয়ার দাবি

0

কওমি মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে স্বাধীনতা পদক দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট অনুরোধ করেছেন শোলাকিয়ার ইমাম মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ।

রবিবার কওমি মাদ্রাসা শিক্ষার সর্বোচ্চ সনদ দাওরায়ে হাদিসকে (তাকমিল) সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর ডিগ্রির সমান স্বীকৃতি দেয়ায় রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ আয়োজিত ‘শুকরানা মাহফিলে’ তিনি এ অনুরোধ করেন।

কওমি মাদ্রাসাগুলোর সর্বোচ্চ সংস্থা ‘হাইআতুল উলয়া লিল জামিয়াতিল কওমি বাংলাদেশ’র ব্যানারে আয়োজিত মাহফিলে সভাপতিত্ব করছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

অনুষ্ঠান মঞ্চে কওমি আলেম-ওলামাদের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান প্রমুখ উপস্থিত রয়েছেন।

শোকরানা মাহফিল থেকে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের ভাতার ব্যবস্থা করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি উত্থাপন করে মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, ‘দেশের গ্রামে-গঞ্জে প্রচুর মসজিদ আছে। সেখানে ইমাম ও মুয়াজ্জিনরা কাজ করেন। তাঁরা ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা ভাতা পান। কিন্তু অনেক দেশে ইমাম, মুয়াজ্জিনদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ভাতার ব্যবস্থা করা হয়। আমাদের পাশের দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গেও সেই ব্যবস্থা আছে।’

‘আমি মসজিদ ইমামদের জন্য পাঁচ হাজার টাকা আর মুয়াজ্জিনদের জন্য তিন হাজার টাকা ভাতার ব্যবস্থা সরকারের পক্ষ থেকে করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করছি। এতে ৫০০ থেকে ৭০০ কোটি টাকার মতো লাগবে,’ যোগ করেন মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসঊদ।

Comment

Share.

Leave A Reply