প্রশাসনের দখলে থাকবে ইজতেমা মাঠ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0

অনলাইন ডেস্ক : আগামী একমাস টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা মাঠ প্রশাসনের দখলে থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

শনিবার বিকালে সচিবালয়ে বিবদমান তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষ নিয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, দু’পক্ষের সংঘাতের কারণে আগামী এক মাস টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা মাঠ প্রশাসনের দখলে থাকবে। এই এক মাসের মধ্যে তাবলিগ জামাতের দুপক্ষ সেখানে কোনো ধরনের কর্মকাণ্ড করতে পারবে না।

এ ছাড়া আজকের সংঘর্ষের ঘটনায় ফৌজদারি মামলা হবে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এর আগে সকালে তাবলিগ জামাতের দুপক্ষের সংঘাতের পর তাদের নিয়ে বৈঠকে বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তাবলীগ জামাতের মুরব্বীরা। ছবি: সংগৃহীত

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দিল্লি মারকাযের মাওলানা সাদ কান্ধলবিপন্থী বাংলাদেশে তাবলিগের শুরা সদস্য সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম এবং সাধারণ মুসল্লিদের পক্ষ থেকে তাবলিগের উপদেষ্টা মাওলানা আশরাফ আলী ও আবদুল কুদ্দুসসহ অন্যরা।

এছাড়া পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়াসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, দুপক্ষের বিবাদের কারণে পূর্বঘোষিত জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব ইজতেমা পেছানোর সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যেই শনিবার সকালে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে ৫ দিনের জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে মাওলানা সা’দ ও সাধারণ মুসল্লিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

মুসল্লিরা জানান, গত ৩০ নভেম্বর শুক্রবার থেকে ৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার পর্যন্ত মাওলানা সা’দপন্থী মুসল্লিরা ৫ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমার ঘোষণা দিলে সাধারণ মুসল্লিরা এর বিরোধিতা করেন এবং জোড় ইজতেমা প্রতিহতের ঘোষণা দেন। এর আগেই তারা ইজতেমা ময়দানের অবস্থান নেন।

শনিবার সকালে সা’দপন্থীরা ইজতেমা ময়দানে গেলে সাধারণ মুসল্লিরা বাঁধা দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। একপর্যায়ে সা’দপন্থীরা ময়দানের গেট ভেঙে ঢোকার চেষ্টা করলে উভয়পক্ষের মুসল্লিদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পরে তারা গেট ভেঙে মাঠে প্রবেশ করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

সংঘর্ষে মাওলানা সা’দপন্থী মুন্সিগঞ্জের মিলকীপাড়া গ্রামের ইসমাইল মণ্ডল (৭০) নামে এক মুসল্লির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। দফায় দফায় এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৫ শতাধিক মুসল্লি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

Comment

Share.

Leave A Reply