হাইআতুল উলইয়া থেকে মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদকে বহিষ্কারের দাবি

0

কওমিকণ্ঠ : গত ১:ডিসেম্বর শনিবার টঙ্গি বিশ্ব ইজতেমার মাঠে তাবলীগের সাথী, আলেম উলামা ও মাদরাসা ছাত্রদের ওপর বিতর্কিত আলেম মাওলানা সা’দ কান্ধলবীর অনুসারী হামলাকারীদের বিচারের দাবীতে গতকাা ইবুধবার (০৫ ডিসেম্বর) মানববন্ধন করেছে জাতীয় ইমাম সমাজ বাংলাদেশ।

সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ঢাকার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, খতিব ও তাবলীগের সাথীরা অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধন থেকে  মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদকে ইজতেমার ময়দানে হামলাকারীদের সমর্থন দেয়ার অভিযোগে আল-হাইআতুল উলইয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ থেকে বহিষ্কার সহ ছয় দফা দাবি জানানো হয়।দাবিগুলো হলো- মূল পরিকল্পনাকারী ওয়াসিফ, খান শাহাবুদ্দিন নাসিম, মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ গংদের আগামী শুক্রবার ফজরের আগে গ্রেফতার করতে হবে এবং তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা। ওয়াসিফ, নাসিম ও বিতর্কিত আলেম মাওলানা সা’দ কান্ধলবীর অনুসারী খুনিদের কাকরাইল মারকাজসহ সারা বাংলাদেশের দাওয়াতি কার্যক্রম থেকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা। বিশ্ব ইজতেমার কাজ সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ইজতেমা ময়দান আহলে হক ওলামায়ে কেরাম ও হকপন্থী তাবলিগী সাথীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া।

মানববন্ধনে সম্মিলিত কওমি শিক্ষা বোর্ড আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া থেকে মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদকে বহিষ্কার করা। একটি সর্বগ্রহণযোগ্য তদন্ত কমিটি গঠন করে ইজতেমায় হামলায় ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক রিপোর্ট জাতির সামনে উপস্থাপন করা ও হামলায় নিহত-আহতদের ক্ষতিপূরণ ও সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা।

এছাড়া দোষীদের যদি আগামী শুক্রবারের পূর্বে গ্রেফতার করা না হয় তাহলে শুক্রবার বাদ জুমা সারা দেশের প্রতিটি মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করা হবে বলে হুশিয়ারি দেয়া হয় এবং সেই বিক্ষোভ মিছিল থেকে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও জানিয়ে দেয়া হয়।

মাওলানা মীর হেদায়েতুল্লাহ গাজীর সঞ্চালনায় ও জাতীয় ইমাম সমাজের সভাপতি ক্বারী আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খেলাফত আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় ইমাম সমাজের সেক্রেটারি মাওলানা মিনহাজ উদ্দিন, মুফতী সাখাওয়াত হোসাইন রাযি, মাওলানা বেলায়েত আল ফিরোজী, মাওলানা আনোয়ারুল হক, মাওলানা জোবায়ের বকশি, মুফতী আনিসুর রহমান, মাওলানা শহিদুল আনোয়ার, মাওলানা আহমদ উল্লাহ, মাওলানা আজহারুল ইসলাম, মাওলানা শামসুল হক প্রমুখ।

Comment

Share.

Leave A Reply