প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন

0

একাদশ জাতীয় সংসদ সদস্যদের শপথ ও নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার সকাল ১০টায় তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে তিনি টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা দেন।

সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা কমপ্লেক্স মাঠে নির্মিত হেলিপ্যাডে তার অবতরণ করার কথা রয়েছে। এর পর বেলা ১১টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে উপস্থিত হয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যরাও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জাতির জনকের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাবেন। মন্ত্রিসভার ৪৬ সদস্য বুধবার ভোরেই ঢাকা থেকে রওনা হয়েছেন।

মন্ত্রিসভার সদস্যরা চিরায়ত ঐতিহ্য ভেঙে বাসযোগে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা রণজিৎ কুমার গণমাধ্যমকে জানান, সকাল ৭টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনের মিডিয়া সেন্টারের সামনে থেকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা করেন। এনা পরিবহনের তিনটি বাসে করে সেখানে যাচ্ছেন তারা। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টুঙ্গিপাড়া পৌঁছানোর কথা রয়েছে তাদের।

জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও মোনাজাত শেষে ওই বাসে করেই মন্ত্রীরা ঢাকায় ফিরবেন।

সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও বাসযাত্রায় শামিল হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে সংশ্লিষ্টরা তাকে হেলিকপ্টারে যেতে অনুরোধ করেন।

প্রসঙ্গত, ঐতিহ্য ভেঙে বাসযোগে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সফর দেশে এটিই প্রথম।

একটি বাসের সামনের সিটে বসেছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বাম পাশের সিটের প্রথমে বসেছেন প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

এ বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমকে বলেন, বুধবার আমরা বাসে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাব। তিনি বলেন, আমরা একসঙ্গে বাসে করে জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য গেছি। এতে সময়-খরচ যেমন বেচেছে, আলাদা করে গাড়িও ব্যবহার করতে হয়নি। জনসাধারণের ভোগান্তিও কমেছে।

গতকাল সাভার স্মৃতিসৌধে যেতে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রীরা নিজস্ব গাড়ি ব্যবহার না করে চারটি এসি বাস ব্যবহার করেন। আসন সংকুলান না হওয়ায় মিনিবাসগুলোর ভেতরে অতিরিক্ত আসনজুড়ে বসতে দেখা যায় তাদের।

প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের টুঙ্গিপাড়ায় আগমণ উপলক্ষে জেলার সর্বত্র নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Comment

Share.

Leave A Reply